সৌদি যুবরাজের মন্তব্যঃ ‘নিজেদের ভূমিতে অধিকার রয়েছে ইসরায়েলের’

মার্কিন ম্যাগাজিন আটলান্টিকে সোমবার প্রকাশিত একটি সাক্ষাৎকারে সৌদি যুবরাজ বলেছেন, ‘নিজেদের ভূমিতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাসের অধিকার রয়েছে ইসরায়েলের’ । ‘নিজেদের পিতৃপুরুষের ভূমিতে একটি জাতিরাষ্ট্র হিসেবে বসবাসের সুযোগ ইহুদিদের আছে বলে তিনি মনে করেন কি না’ – এই প্রশ্নের জবাবে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান বলেন “আমি বিশ্বাস করি, নিজেদের ভূমির ওপর ফিলিস্তিনি এবং ইসরায়েলিদের পূর্ণ অধিকার আছে। আমাদের এখন একটি শান্তিচুক্তি দরকার যাতে সব পক্ষই স্থিতিশীল ও স্বাভাবিক একটি সম্পর্ক বজায় রাখতে পারে।”

সম্প্রতি তিন সপ্তাহের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন মোহাম্মদ বিন সালমান। তখনই তিনি এ সাক্ষাৎকার দেন। রিয়াদ ও তেল আবিবের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা যে বাড়ছে, এটা তারই একটি নমুনা। সৌদি আরব ও ইসরায়েলের কোনো ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দ্রুতগতিতে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটেছে।

কারণ, দুই দেশই পরমাণু শক্তিধর ইরানকে হুমকি হিসেবে দেখছে। সৌদি যুবরাজ আরও বলেন, ‘ইসরায়েলের ও আমাদের একাধিক বিষয়ে অভিন্ন স্বার্থ আছে। আর শান্তি যদি থাকে, উপসাগরীয় সহযোগিতা কাউন্সিলের অন্য সদস্য দেশগুলোও ইসরায়েলের সঙ্গে অনেক বিষয়ে আগ্রহী হবে।’

Please follow and like us:

Post Reads: 229 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *