ফুসফুস ভালো রাখবে শ্বাসের ব্যায়াম

শরীরের প্রয়োজনীয় অঙ্গের একটি হলো ফুসফুস।ফুসফুসের কাজ অবিরাম চলতে থাকে।একজন স্বাস্থ্যবান মানুষ দিনে ২৫ হাজার বার শ্বাস নেয়।নিয়মিত শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম ফুসফুসকে সুস্থ রাখে।বিশেষত হাঁপানি বা ক্রনিক ব্রংকাইটিসের রোগীদের ফুসফুসের কর্মক্ষমতা বাড়াতে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম উপকারী।এ রকম কয়েকটি ব্যায়াম পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:

শ্বাস গোনার ব্যায়াম

এই ব্যায়ামে ক্রমান্বয়ে প্রশ্বাসের সময় ধীর করে আনতে হয়।মেরুদণ্ড সোজা করে বসুন।চোখ বন্ধ করে পর পর কয়েকবার গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস নিন।ধীরে ধীরে এর গতি কমে আসবে।প্রথমে প্রশ্বাস ছাড়ার সময় এক গুনবেন, তার পরের বার দুই, এভাবে পাঁচ পর্যন্ত।তারপর আবার নতুন করে এক দিয়ে শুরু করুন।এই ব্যায়ামটি দিনে ১০ মিনিট করবেন।এটি এক ধরনের মেডিটেশন বা ধ্যান।এটি মস্তিষ্ককে সজাগ করে ও মনঃসংযোগ বাড়ায়।মানসিক চাপ কমায়।

রিলাক্সিং ব্রিদিং

পিঠ সোজা রেখে আরাম করে বসুন।‘হুস’ আওয়াজ করে মুখ দিয়ে ফুসফুসের সবটুকু বাতাস বের করে দিন।এবার চোখ বন্ধ করে নিঃশব্দে নাক দিয়ে ১ থেকে ৪ পর্যন্ত গুনতে গুনতে গভীর শ্বাস নিন।সেটা ভেতরে আটকে রাখুন, মনে মনে ৭ পর্যন্ত গুনুন।এবার ঠোঁট গোল করে আবার ‘হুস’ করে পুরোটা বাতাস বের করে দিন ৮ পর্যন্ত গুনতে গুনতে।কয়েক সেকেন্ড বিশ্রাম নিয়ে পর পর চারবার এভাবে শ্বাস নিন।এই ব্যায়াম দিনে দুবার করা ভালো।এতে ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি মানসিক চাপ কমে এবং ঘুমও ভালো হয়।

বেলো ব্রিদিং

মুখ বন্ধ করে চটপট নাক দিয়ে ঘন ঘন শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়ার ব্যায়াম এটি।প্রতি সেকেন্ডে তিনবার শ্বাস নেওয়া ও ছাড়ার চেষ্টা করুন।শ্বাস নেওয়া ও ছাড়ার সময়টি সমান থাকবে।এতে বুকের ও বক্ষচ্ছদার মাংসপেশির দ্রুত ব্যায়াম হবে।তারপর ১৫ সেকেন্ড স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিন।এটি যোগব্যায়ামের একটি কৌশল।এতে ক্লান্তি ঝরে যায় এবং কর্মস্পৃহা ও উদ্যম বাড়ে।

Please follow and like us:

Post Reads: 58 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *