ক্রাইস্টচার্চে এক দিনেই নেই ১৪ উইকেট

মাথার ওপর মেঘাচ্ছন্ন আকাশ। ঠান্ডা বাতাস আর সবুজ উইকেট। পেসারদের জন্য পোয়াবারো কন্ডিশন। ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে আজ এমন কন্ডিশন পেয়ে ব্যাটসম্যানদের নাভিশ্বাস তুলেছেন দুই দলেরই পেসাররা। সারা দিনে পড়েছে মোট ১৪ উইকেট, আর দুই ইনিংস মিলিয়ে রান উঠেছে মাত্র ২৬৬!

সারা দিনে খেলা হয়েছে ৮২ ওভার। এর মধ্যে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসে তুলতে পেরেছে মাত্র ১৭৮। তবে প্রথম দিন শেষে কেন উইলিয়াসসনের দল কিন্তু হাসিমুখেই মাঠ ছাড়তে পেরেছে। শ্রীলঙ্কা যে বাকি ৩২ ওভার ব্যাটিং করে ৮৮ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারিয়েছে। সোজা কথায়, ক্রাইস্টচার্চে প্রথম দিনটা শুধুই পেসারদের। শ্রীলঙ্কার দুই পেসার সুরঙ্গা লাকমল ও লাহিরু কুমারা মিলে নিয়েছেন ৯ উইকেট। এর মধ্যে একাই ৫ উইকেট নিয়েছেন লাকমল।

দলীয় স্কোর ১০০ তোলার আগেই অলআউট হতে পারত নিউজিল্যান্ড। ৬৪ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারিয়েছিল দলটি। টপ অর্ডারে রাভাল, লাথাম, উইলিয়ামসন, টেলরদের সবাই ব্যর্থ। ৬৫ বলে ৬৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংসে এখান থেকে নিউজিল্যান্ডের স্কোর দেড় শ-র ওপাশে নিয়ে যান পেসার টিম সাউদি! সপ্তম উইকেটে বিজে ওয়াটলিংয়ের (৪৬) সঙ্গে ১০৮ রানের জুটি গড়ে সাউদি বুঝিয়ে দেন ব্যাটিংটা তিনি ভালোই পারেন। টেস্টে এটি তাঁর পঞ্চম ফিফটি। আসলে দিনটা যদি হয় পেসারদের তাহলে সেই কৃতিত্ব সাউদিরই বেশি।

শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ে নামার পর সাউদি স্রেফ সুইংয়ে তছনছ করে দেন। ২১ রানের মধ্যে সফরকারি দলটির টপ অর্ডার গুঁড়িয়ে দেন সাউদি। তুলে নেন প্রথম তিন ব্যাটসম্যানকে। বাকি ১টি উইকেট কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস (২৭*) ও রোশান সিলভা (১৫*) মিলে শেষ পর্যন্ত প্রথম দিনটা পার করেছে

Please follow and like us:

Post Reads: 43 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *