ওয়ালটনের ল্যাপটপ রফতানি শুরু, প্রথম লট যাবে নাইজেরিয়ায়

আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়ায় প্রথমবারের মতো ল্যাপটপ রপ্তানি করতে যাচ্ছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন।‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটন ল্যাপটপ প্রথমাবস্থায় নাইজেরিয়াতে রপ্তানি হলেও তা অল্প সময়ের মধ্যে নেপাল, ভুটান এবং পূর্ব তিমুরসহ বেশকিছু দেশে রপ্তানির কথাও হয়েছে।বুধবার বিকেলে সচিবালয়ে ল্যাপটপ রপ্তানি কার্যক্রমের উদ্বোধন ও আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম রেজাউল আলম, ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম শামসুল আলম এবং নাইজেরিয়ার আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ওয়েস্টার্ন বেজ নাইজেরিয়া লিমিটেডের পরিচালক ডেভিড নোনে।অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ওয়ালটন প্রযুক্তিপণ্যের রপ্তানিকারক হিসেবে দ্রুততম সময়ে আবির্ভূত হয়েছে। অন্যান্য পণ্যের মতো ল্যাপটপেও সফল হবে।

এটাকে মাইলফলক উল্লেখ করে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আফ্রিকা একটা বড় বাজার, সেই বাজারে বাংলাদেশ ওয়ালটনের মাধ্যমে প্রবেশ করছে। ওয়ালটনের সাফল্যে আরো প্রতিষ্ঠান এই খাতে বিনিয়োগ করতে এগিয়ে আসছে বলে জানান তিনি।তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ওয়ালটন প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদনে যে সাফল্য দেখিয়েছে তা অন্যান্য দেশী-বিদেশী প্রতিষ্ঠানের জন্য অনুকরণীয়। ওয়ালটনের মাধ্যমেই দেশে ল্যাপটপ আমদানি কমে আসবে। ফলে আমাদের যেমন বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় হবে তেমনি আমাদের দেশে কর্মসংস্থানের একটা বড় ক্ষেত্র তৈরি হবে।চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারি গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ড্রাস্ট্রিজে কম্পিউটার উৎপাদন কারখানাটি চালু হয়। সেখানে উচ্চমানসম্পন্ন ল্যাপটপ, ডেস্কটপ ও মনিটরসহ বিভিন্ন প্রযুক্তিপণ্য তৈরি হচ্ছে।কারখানার মাসিক উৎপাদন ক্ষমতা ৬০ হাজার ইউনিট ল্যাপটপ, ৩০ হাজার ইউনিট ডেস্কটপ এবং আরো ৩০ হাজার ইউনিট মনিটর।

ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ জানায়, ইন্টেল-মাইক্রোসফট এবং বিজয় বাংলার সমন্বয়ে আন্তর্জাতিক মানের ল্যাপটপ কম্পিউটার উৎপাদন করছে ওয়ালটন।প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তাদের কাছে প্রথম রপ্তানি আদেশ এসেছে দক্ষিণ আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়া থেকেই। শুরুতে ৫০০ ইউনিট ল্যাপটপ যাবে নাইজেরিয়া।

Please follow and like us:

Post Reads: 226 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *