এবার ডায়াবেটিস রোগীদের ভোগান্তি কমাতে আসল ই-রেজিস্ট্রেশন।

দেশে প্রতিবছর ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। এবার ডায়াবেটিস রোগীদের চিকিৎসায় ভোগান্তি কমাতে তাদের ই-রেজিস্ট্রেশনের আওতায় আনা হচ্ছে।

‘ইলেকট্রনিক রেজিস্ট্রেশন ফর ডায়াবেটিস পেসেন্ট’ (বিএনডিআর) সম্পূর্ণ হলে প্রেসক্রিপশন ও ফাইলপত্র নিয়ে রোগীদের ঘুরতে হবে না। চিকিৎসকরা একসঙ্গে তাদের সব তথ্য পেয়ে যাবেন।

গত ৩ জানুয়ারি থেকে শান্তিনগর এক্সিকিউটিভ সেন্টারে এই ই-রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

ঢাকার ডায়াবেটিক সমিতির ৩২টি সেন্টারের ডাটা এন্ট্রির কাজ চলছে।এই কাজ সম্পূর্ণ শেষ হতে সময় লাগবে ৬ মাস। এছাড়া ঢাকার বাইরে ১৬০টি সেন্টারের সব রোগীর ই-রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি শেষ হতে সময় লাগবে দুই বছর।

হেলথ কেয়ার নেটওয়ার্কের সহকারী পরিচালক (প্রকল্প) মো. কামরুজ্জমান বলেন, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বেশি মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে। ডায়াবেটিস শুধু একটি রোগই নয়, অনেক রোগের উপসর্গও। ন্যাশনাল এই পদ্ধতির মাধ্যমে রোগীদের সব তথ্য এক জায়গাতেই থাকবে।এতে চিকিৎসা করা সহজ হবে।

এই প্রোজেক্টের স্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান হচ্ছেন প্রফেসর ফারুক পাঠান। প্রোজেক্ট চেয়ারম্যান ডা. এম এ সামাদ এবং কো-অর্ডিনেটর ডা. বিশ্বজিৎ ভৌমিক।

সকল ডাটা এন্ট্রি শেষ হলে রোগীদের একটি নির্দিষ্ট রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেয়া হবে।এরই রেজিস্ট্রেশন নম্বর বললে চিকিৎসক পোর্টালে ঢুকে রোগীর হিস্ট্রি জানতে পারবেন।

Please follow and like us:

Post Reads: 50 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *