আত্মঘাতী গোলের সুবাদে ড্র পেল পিএসজিঃ হতাশ স্বাগতিক এতিয়েনরা

শেষ মুহূর্তের আত্মঘাতী গোলে ফ্রেঞ্চ লিগে  ড্র পেয়েছে পিএসজি। শুক্রবার লিগ টেবিলের নবম স্থানে থেকে খেলতে নামা ইচেনার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে শীর্ষে থাকা দলটি। এখনো পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে নেইমারের এই ক্লাব। আজকের খেলায় তালিকার ৯ নম্বরে থাকা সেন্ট এতিয়েনের সঙ্গে হেরে জয়রথ থেমেই গিয়েছিল! প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার ম্যাথু দিবুশির অমন আত্মঘাতী গোল না হলে শেষরক্ষা হতো না ফ্রেঞ্চ জায়ান্টদের।  অন্যদিকে, ম্যাচের শেষ যোগ হওয়া মিনিটে আত্মঘাতী গোলে নিজেদের মাঠে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় এতিয়েনদের।

বল দখলে এগিয়ে থেকেও এতিয়েনের রক্ষণে ভয় ধরাণো আক্রমণে যেতে পারেনি পিএসজি। বরং ম্যাচের শুরুতে গোল খেয়ে পিছিয়ে যায় ফ্রেঞ্চ জায়ান্টরা। ১৭তম মিনিটে এতিয়েন ডিফেন্ডার ম্যাথু দিবুশির দুর্দান্ত ক্রস থেকে রেমি কাবেলার শট পিএসজির জালে জড়ালে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় এতিয়েন। ২০ মিনিটের মাথায় আবারও ভালো সুযোগ তৈরি করে এতিয়েন। তবে গোলসংখ্যা বাড়াতে পারেননি দিবুশি-হামুমোরা। এরপর ছোটখাটো সুযোগ তৈরি করলেও গোলের দেখা পায়নি পিএসজি। উল্টো ম্যাচের ৩০তম মিনিটে পিএসজির কিমপেমবে নিজেদের ডি-বক্সে হামুমোরাকে পেছন থেকে টেনে ধরলে পেনাল্টির ফাঁদে পড়ে পিএসজি। কাবেলার পেনাল্টি শট পিএসজির গোলরক্ষক আটকে না দিলে প্রথমার্ধে অন্তত দুই গোল নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারত স্বাগতিক এতিয়েন। সেটা আর হয়নি। তবে বেশ কয়েকবার ভালো সুযোগ তৈরি করেছিল ফরাসি এই ক্লাবটি। ম্যাচের ৪১তম মিনিটে আবারও ফাউল করেন কিমপেমবে। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে তিনি মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হয় পিএসজি।

ম্যাচের শেষ ২০ মিনিট খানিকটা চাপ তৈরি করে খেলতে সক্ষম হয় পিএসজি। তবু ম্যাচের ৯০তম মিনিট পর্যন্ত এগিয়েই থাকে স্বাগতিকেরা। ম্যাচের শেষের যোগ হওয়া সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে চরম ভুলটি করে বসে তারা। ডান দিক থেকে উড়ে আসা বল গোলমুখে ঠেকাতে গিয়েছিলেন ফরাসি ডিফেন্ডার মাথিউ দেবুচি। কিন্তু তার পায়ে লেগে বল চলে যায় জালে।

Please follow and like us:

Post Reads: 78 Times

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *