২১ এপ্রিলই পবিত্র শবে বরাত

0
67

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতেই পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে। শাবান মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে বিভ্রান্তি নিরসনে দেশের শীর্ষপর্যায়ের ওলামায়ে কেরামগণের সমন্বয়ে গঠিত ১১ সদস্যবিশিষ্ট সাব-কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শেখ মো. আব্দুল্লাহ এ ঘোষণা দেন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, চাঁদ দেখার বিষয়টি সম্পূর্ণ ধর্মীয়

প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়, যারা চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছিলেন, তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং তা যাচাইয়ের জন্য গতকাল সাব-কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষীগণ সাব-কমিটির বারবার অনুরোধের পরও সাক্ষ্য প্রদানের জন্য সভায় উপস্থিত হননি। বরং সাক্ষ্য প্রদানের জন্য এমন কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছেন যেভাবে সাক্ষ্য গ্রহণের শরীয়তে কোনো ভিত্তি নেই, তাই চাঁদ দেখার কোনো সাক্ষী না পাওয়ায় ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির গত ৬ এপ্রিল ঘোষিত সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে সাব-কমিটি। সেই মোতাবেক আগামী ২১ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত অনুষ্ঠিত হবে। সাব-কমিটির প্রধান করা হয় মারকাযুদ দাওয়াহ আল ইসলামিয়া ঢাকার শিক্ষা সচিব মাওলানা মুফতি মুহাম্মাদ আব্দুল মালেককে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয়, যারা চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছিলেন, তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং তা যাচাইয়ের জন্য গতকাল সাব-কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষীগণ সাব-কমিটির বারবার অনুরোধের পরও সাক্ষ্য প্রদানের জন্য সভায় উপস্থিত হননি। বরং সাক্ষ্য প্রদানের জন্য এমন কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছেন যেভাবে সাক্ষ্য গ্রহণের শরীয়তে কোনো ভিত্তি নেই, তাই চাঁদ দেখার কোনো সাক্ষী না পাওয়ায় ইসলামী শরিয়াহ অনুযায়ী জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির গত ৬ এপ্রিল ঘোষিত সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে সাব-কমিটি। সেই মোতাবেক আগামী ২১ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত অনুষ্ঠিত হবে। সাব-কমিটির প্রধান করা হয় মারকাযুদ দাওয়াহ আল ইসলামিয়া ঢাকার শিক্ষা সচিব মাওলানা মুফতি মুহাম্মাদ আব্দুল মালেককে।

এরপর দেশের আকাশে সেদিন চাঁদ দেখা গেছে মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল এমন তথ্য প্রকাশ করলে বিতর্ক দেখা দেয়। এমন অবস্থায় দফায় দফায় বৈঠক শেষে গত ১৩ এপ্রিল ১১ সদস্যের সাব-কমিটি গঠন করা হয়। গতকাল এই কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে আগের ঘোষণাই বহাল রাখা হয়েছে।

রিপোরটঃ ঘুড্ডি ডেস্ক

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here